ঢাকা, শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯, ১২ রজব ১৪৪৪

অনেক সেক্রিফাইস করেছি, আর না : আরজে কিবরিয়া

প্রকাশনার সময়: ১২ জানুয়ারি ২০২৩, ২২:১৯

দেশের জনপ্রিয় রেডিও জকি ও ইউটিউবার মো. গোলাম কিবরিয়া সরকার (আরজে কিবরিয়া)। জানা যায়, স্ত্রী-সন্তানসহ ৫-৭ জনের একটি পারিবারিক বহর নিয়ে বুধবার কক্সবাজার বেড়াতে এসে সৈকত তীরের একটি তারকা মানের হোটেলে উঠেন তিনি। সেখানেই বৃহস্পতিবার সকালের কোনো এক সময় স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এ সময় সন্তানদের মেরে স্ত্রী আত্মহত্যার হুমকি দিলে আরজে কিবরিয়া জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ কল দেন। কল পেয়ে কক্সবাজার সদর থানার একটি টিম হোটেলে গিয়ে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালান। এবং নিরাপত্তার স্বার্থে আরজে কিবরিয়াকে জিডি করার পরামর্শ দেন।

বৃহস্পতিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে পরামর্শ অনুযায়ী কক্সবাজার সদর মডেল থানায় গিয়ে তিনি একটি জিডি করেন। কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম জিডির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিজ স্ত্রীর নামে আরজে কিবরিয়ার জিডি করার বিষয়টি জানাজানি হলে প্রায় সকল গণমাধ্যমে এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়। বিষয়টি নিয়ে সরগরম হয়ে ওঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো। দিনভর বিষয়টি নিয়ে নানারকম আলোচনা-সমালোচনায় মেতে থাকেন নেটিজেনরা। এর ধারাবাহিকতায় অবশেষে বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছেন কিবরিয়া। পুরো বিষয়টি নিয়ে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে তিনি একটি নাতিদীর্ঘ স্ট্যাটাসও লিখেছেন। কিবরিয়ার সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হল নয়া শতাব্দীর পাঠকদের জন্য-

প্রিয় পরিচিত জন,

আমার জ্ঞানত আমি কোনদিন আমার পারিবারিক বিষয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে আলোচনা সমালোচনা হয় এমন কোন কথা বলিনি। আমি বলতেও চাইনা যতক্ষণ পর্যন্ত সে আমার স্ত্রী। আমি কমবেশি সোশ্যাল মিডিয়ার নেগেটিভিটি ফেস করা মানুষ। আমি জানি একটা সংবাদ যাচাই বাছাই না করে অনলাইনে ছাড়া যায়। ঘটনা পুরাই উল্টে দেওয়া যায়। কাউকে নিয়ে পাবলিকলি বাজে কথা বলার আমি পক্ষে না। আমি জানি আমার চির শত্রু বলে যদি কেউ থেকে থেকে তো সে প্রথম এবং একমাত্র টার্গেট করবে আমার চরিত্র এবং পাবলিক ইমেজ। আমি সেটাতে বিন্দুমাত্র ভয় পাইনা। আমি ক্ষমা করতে ভালোবাসি। আমার সন্তানদের ক্ষতি যেমন আমি কোনদিন মেনে নিব না, ঠিক একই ভাবে আপনাদের এই ভুলভাল নিউজ তাদের ফিউচারের জন্য কোন ক্ষতি হোক সেটাও আমি চাইনা। প্লিজ। আমি আমার কাছে সৎ এবং কারো প্রতি কোন অন্যায় করিনি। যারা আমাকে ভালোবাসেন তারা আস্থা রাখুন। দোয়া করবেন।

কিবরিয়ার এই স্ট্যাটাসের মন্তব্যের ঘরে সানাউল্লাহ লাভলু নামে একজন লেখেন- মাথা ঠান্ডা রাখেন কিবরিয়া। ধৈর্য রাখুন। আমি জানি আপনি পারবেন।

লাভলুর ওই মন্তব্যের প্রতিউত্তরে কিবরিয়া লেখেন- আমাকে এবার পারতেই হবে লাবলু ভাই। অনেক সেক্রিফাইস করেছি... অনেক। আপনি ছাড়া আর কে বেশি ভালো জানেন। জন্মদাতা মা কেও ঢুকতে দিতে পারিনা আমার বাসায়। সন্তানকেও তাই বলে সেক্রিফাইস! নোপ। নেভার! আর কতকাল পাবলিক ইমেজের ক্ষতি হবে ভেবে নিজেকে নিজে ধ্বংস করবো। আমি সব কিছুর জন্য প্রস্তুত আছি। ইনশা আল্লাহ।

নয়াশতাব্দী/এমএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ