ঢাকা, শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাশিয়ার গ্যাস পাইপলাইনে ফুটো, নৌযান চলাচলে ঝুঁকি

প্রকাশনার সময়: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৩৩

বাল্টিক সাগরের তলদেশ দিয়ে যাওয়া রাশিয়ার আলোচিত গ্যাস পাইপলাইন নর্ড স্ট্রিম-২ ফুটো হয়ে গেছে। এতে নৌযান চলাচলে কিছুটা ঝুঁকি দেখা দিয়েছে বলে ডেনমার্ক কর্তৃপক্ষ।

ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডেনমার্কের সামুদ্রিক ট্র্যাফিক এজেন্সি বর্নহোলম দ্বীপের কাছে পাঁচ নটিক্যাল বর্গ মাইল এলাকা আটকে দিয়েছে। সমস্তরকম জাহাজ, নৌকো চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ওই এলাকা দিয়েই নর্ডস্ট্রিম ২ গ্যাস পাইপ লাইন গেছে।

ডেনমার্ক জানিয়েছে, ওই জায়গাতেই পাইপ লাইনে ফুটো হয়েছে। গ্যাস সমুদ্রে গিয়ে পড়েছে। পাইপলাইনে গ্যাসের প্রেশার ছিল ১০৫। আচমকাই তা সাতে নেমে যায়। তারপরই তারা দেখতে পায়, সমুদ্রের জলে বুদবুদ তৈরি হয়েছে। তখনই গ্যাল লিক হওয়ার বিষয়টি স্পষ্ট হয়।

ওই অঞ্চলে জাহাজ ঢুকে পড়লে বড়সড় দুর্ঘটনার সম্ভাবনা আছে। সে জন্যই গোটা এলাকাটি সিল করে দেয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞ ছাড়া কাউকেই ওই অঞ্চলে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

ডেনমার্কের জ্বালানিবিষয়ক মন্ত্রণালয় বিবিসিকে জানিয়েছে, সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সমুদ্রের তলদেশে পাইপলাইনে চাপ কমে যাওয়ার বিষয়ে জানানোর পর এটি নিয়ে কাজ করেছে কর্তৃপক্ষ।

ওই পাইপলাইনের তত্ত্বাবধায়ক প্রতিষ্ঠান নর্ড স্ট্রিম-২ এজির বড় অংশের মালিকানা রাশিয়ার একটি প্রতিষ্ঠানের। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা।

নর্ড স্ট্রিম ১ দিয়ে রাশিয়া এখন জার্মানিকে গ্যাস সরবরাহ করে। গত ২০২১ সালেই তাদের নর্ড স্ট্রিম ২ দিয়ে গ্যাস দেয়ার কথা ছিল। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তও হয়ে গেছিল। কিন্তু তারইমধ্যে যুদ্ধ শুরু হয়ে যায় এবং গ্যাস সরবরাহ অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্থগিত হয়ে যায়। গ্যাস সরবরাহ না হলেও পাইপলাইনে গ্যাস আছে। কারণ, পরীক্ষা করার জন্য গ্যাস ঢোকানো হয়েছিল।

নয়াশতাব্দী/জেডআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ