ঢাকা, বুধবার, ৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৯ আশ্বিন ১৪৩০, ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

মাতৃগর্ভের মতো কৃত্রিম গর্ভাশয়ের যাত্রা শুরু

প্রকাশনার সময়: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২১:২২

মাতৃগর্ভে ৩৭ থেকে ৪০ সপ্তাহ কাটানোর পর জন্ম হয় পরিপূর্ণ মানব শিশুর। তবে মায়ের গুরুতর শারীরিক অসুস্থতাসহ বিভিন্ন কারণে ২৮ সপ্তাহের আগেই জন্ম হতে পারে অতিমাত্রায় প্রিম্যাচিউরড বেবি বা অপরিণত শিশুর। এমন সব শিশুকে বাঁচিয়ে রাখা প্রায় অসম্ভব। আর সেই অসম্ভবকে জয় করতে নিরলস কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন এক দল গবেষক।

তারা মাতৃগর্ভের মতো কৃত্রিম গর্ভাশয় তৈরি করেছেন। আর এর মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে রাখা হবে মৃত্যুর ঝুঁকিতে থাকা অপরিপূর্ণ শিশুদের। কৃত্রিম এসব গর্ভাশয়ে ধীরে ধীরে পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে নবজাতক। মায়ের গর্ভ থেকে জন্ম নেয়ার পর তাদের দ্বিতীয় জন্ম হতে যাচ্ছে এমনসব কৃত্রিম গর্ভাশয় থেকে। নেচার জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা প্রতিবেদন থেকে এইসব তথ্য জানা গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসেলভিনিয়ার চিল্ড্রেনস হসপিটাল অফ ফিলাডেলফিয়ায় এমন একটি কৃত্রিম গর্ভাশয়ে এমনভাবে বেড়ে উঠছে একটি ভেড়ার শাবক। এটি হচ্ছে কৃত্রিম গর্ভাশয় থেকে জন্ম নেয়া অষ্টম ভেড়া শাবক।

চলতি বছরের এপ্রিলে তারা এমন একটি ভিডিও প্রকাশ করে যেখানে দেখা যায়, শাবকটি এক ধরনের তরলের ভেতরে খানিকটা নড়াচড়া করছে। এর চার পাও নড়ছে।

এই গবেষকরা এখন অপরিপক্ক মানবশিশুকে পরীক্ষামূলকভাবে এমন কৃত্রিম গর্ভাশয়ে রাখবেন। এর নাম রাখা হয়েছে এক্সট্রা উটেরাইন এনভায়রনমেন্ট ফর নিউবর্ন ডেভেলপমেন্ট বা এক্সটেন্ড। তারা জানিয়েছেন, গর্ভধারণের শুরু থেকে এমন গর্ভাশয়ে রাখা যাবে না। শুধুমাত্র ২৮ সপ্তাহ বা এর কিছু কম-বেশি বয়সী নবজাতকের জন্য এমন ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। অর্থাৎ যেসব শিশু মাতৃগর্ভে প্রায় ৭০ শতাংশ সময় পার করেছে তাদের জন্যেই হচ্ছে এমন কৃত্রিম গর্ভাশয়।

অনেকটা গোলাকার প্লাস্টিকের বলের মতো দেখতে এই কৃত্রিম জরায়ুর ভেতরে থাকবে অপরিণত শিশুটি, তার সাথে জুড়ে দেয়া পাইপ দিয়ে তার জন্য আসবে অতিপ্রয়োজনীয় রক্ত ও অন্যান্য তরল। ঠিক মায়ের গর্ভের মতোই পরিবেশ নিশ্চিত করা হবে সেখানে।

বিশ্বব্যাপী এখনো নবজাতকের মৃত্যুর অন্যতম বড় কারণ অপরিণত শিশু জন্ম। মানবশিশুর জন্যে শিগগিরই শুরু হতে যাচ্ছে এই গর্ভাশয়ের যাত্রা।

নয়া শতাব্দী/এমবি

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ