মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

‘ভাইরাল হতে মীর সাব্বিরকে পুঁজি’

প্রকাশনার সময়: ১৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩:১৬

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে খোলামেলা ছবি পোস্ট করে বেশ আগে থেকেই পরিচিত উপস্থাপিকা ইশরাত পায়েল। সম্প্রতি তিনি আলোচনায় এসেছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা মীর সাব্বিরের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে।

তার অভিযোগ, গত ১১ নভেম্বর ‘মিসেস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২২’ এর ফাইনাল রাউন্ডের মঞ্চে মীর সাব্বিরকে বরিশালের আঞ্চলিক ভাষায় একটি সংলাপ বলার জন্য অনুরোধ করেন ইশরাত। মীর সাব্বির তখন উপস্থাপিকাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ’এই মাতারি তুমি এইরহম উদলা গাইয়ে দাঁড়ায় আছো কিয়ের লাইগ্যা।’ শুদ্ধ ভাষায় বাক্যটি হলো, এই মেয়ে তুমি এমন উলঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়ে আছ কেন? মীর সাব্বিরের ‘কুরুচিপূর্ণ’ এমন মন্তব্য প্রত্যাহার ও দুঃখ প্রকাশের আহবান জানিয়েছেন ইসরাত। যা এখন সোশ্যালে আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে।

এ অভিযোগের প্রেক্ষিতে বুধবার (১৬ নভেম্বর) নিজের সেই মন্তব্যের বিষয়টি স্পষ্ট করেন মীর সাব্বির। তার ভাষ্য, ‘এক দেশের গালি, আরেক দেশের বুলি।’ এ কথা বলার পেছনে অভিনেতার কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। উপস্থাপিকা তার শব্দের মানে বুঝতে পারেননি।

মীর সাব্বিরের মতো একজন গুণী অভিনেতার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তোলায় খেপেছেন অভিনেতা, নির্মাতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়। এ বিষয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিতে দীর্ঘ একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

স্ট্যাটাসে জয় লিখেছেন, অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে এবং কিছুটা দাবি খাটিয়ে অভিনেতা মীর সাব্বিরকে মঞ্চে কিছুটা মজা করার জন্য দাঁড় করালেন উপস্থাপিকা। বরিশালের ভাষায় মীর সাব্বির মজাও করলেন। তারপর সব শেষ। সবাই আনন্দ পেয়ে ঘরে গেল।

তিনি আরো লেখেন, উপস্থাপিকা বা কোনো মাধ্যম এই অনুষ্ঠান থেকে একটি ভাইরাল টপিক বানানোর জন্য মীর সাব্বিরের মজাটাকে পুঁজি করল। সারাদিন মীর সাব্বিরকে নিয়ে ট্রল। উপস্থাপিকা মীর সাব্বিরের বিরুদ্ধে কিছুটা অশালীনভাবেই বিভিন্ন মাধ্যমে বক্তব্য দিয়েই যাচ্ছেন। আপনার যদি এতই আলোচনায় আসতে ইচ্ছে হয় আপনি আমার কাছে আসেন। এই বিষয়ে মীর সাব্বির আপনাকে অনেক দূর নিতে পারবে না। মাত্র দুই-তিন দিন। আমার অনুষ্ঠান আপনাকে এক বছর আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রাখবে।

সতর্ক করে এই অভিনেতা লিখেছেন, নারীর পোশাক এবং নারীকে সম্মান করা এই বিষয়ে মীর সাব্বিরসহ আমাদের জেনারেশনের সকল অভিনেতাদের সম্পূর্ণ শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা আছে। মীর সাব্বিরকে নিয়ে ট্রল করেন অসুবিধা নাই। ভুলেও তাকে অসম্মান করার চেষ্টা করবেন না।

তার ভাষ্য, ট্রল কাকে বলে, কত প্রকার ও কি কি- বিষয়টা আপনাকে বোঝাতে চাই না। ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয়েছে মীর সাব্বির যখন বিবাহিত বলেছে, তখন আপনার মন খুব খারাপ হয়েছে। তাই আপনি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য মীর সাব্বির সম্পর্কে আজেবাজে কথা বলছেন।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ