রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

‘আমরা ১২ জন প্রতিহিংসার শিকার, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চাই’

প্রকাশনার সময়: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:৪৫ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩:৪৮

রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজে মারামারির ঘটনায় বহিষ্কৃত ছাত্রলীগের নেত্রীরা বলেছেন, আমরা প্রতিহিংসার শিকার হয়েছি। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টায় ইডেন কলেজে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তারা।

এ সময় লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান সদ্য বহিষ্কৃত ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সুস্মিতা বাড়ৈ ও সাংগঠনিক সম্পাদক সামিয়া আক্তার বৈশাখী। তাদের পাশে সদ্য বহিষ্কার হওয়া অন্য নেত্রীরাও ছিলেন।

তারা বলেন, কী অন্যায় আমাদের? আমাদের অপরাধ আমরা নির্যাতিত সহযোদ্ধার পাশে দাঁড়িয়েছি। ইডেন কলেজের সভাপতি তামান্না জেসমিন রিভা ও সাধারণ সম্পাদক রাজিয়া সুলতানার বিরুদ্ধে অভিযোগের হাজার হাজার প্রমাণ রয়েছে। তাদের চাঁদাবাজির ভিডিও রয়েছে, অধ্যক্ষ-ম্যামদের নিয়ে কটূক্তির করলেও তাদের কেন বহিষ্কার করা হলো না।

এ সময় বহিষ্কৃত নেত্রীরা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সম্পাদকের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন, দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করে সেখান থেকে একজন নেত্রী পদত্যাগের পরও নতুন করে কমিটি না করে কোন তদন্তের ভিত্তিতে এই প্রেস রিলিজ দেয়া হলো।

তারা বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সভাপতিকে মারধরের। আমরা তো আগে সংঘর্ষ বাধায়নি। দুই পক্ষই সংঘর্ষ করেছে। তাহলে একপক্ষকে কেন বহিষ্কার করা হলো।

এ সময় আগের একটি ঘটনার উদাহরণ দিয়ে তারা বলেন, আমরা বলতে চাই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনজীর হোসেন নিশী রোকেয়া হলের এজিএস ফাল্গুনীকে মারধর করলে তাকে কেন বহিষ্কার করা হলো না? তার বিরুদ্ধে মামলা চলমান, অথচ সেই মামলার আসামিকে ইডেন কলেজে দায়িত্বপ্রাপ্ত করা হয়েছে এবং প্রত্যেক তদন্ত কমিটিতে তাকেই রাখা হয়।

এসময় নেত্রীরা অভিযোগ করেন, কোনো ধরনের কারণ দর্শানোর নোটিশ ছাড়াই তাদের স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে।

এসময় তারা বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করার আহবান জানান। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার না হলে আমরণ অনশনের হুমকি দেন।

তারা বলেন, গতকালের সংবাদ সম্মেলনে ইডেন কলেজের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে কথা বলতে ২১ জন নেত্রী উপস্থিত থাকলেও শুধু মাত্র ১২ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আমরা তাদের প্রতিহিংসার শিকার হয়েছি। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি-সম্পাদক ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের পক্ষ নিয়ে এসব করছেন।

এর আগে, দুই পক্ষের সংঘর্ষ আর ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার জেরে ইডেন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করা হয়। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাতে ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। সেখানে আরো বলা হয়, সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙের দায়ে ১৬ জনকে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ