ঢাকা, সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইলিশে ভরপুর বাজার, তবুও দাম চড়া

প্রকাশনার সময়: ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫৩

সাগরে ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ। বাজারও সয়লাব ইলিশে। কিন্তু দামে কোনো কমতি নেই। তাই সাধ থাকলেও ইলিশ কেনার সাধ্য নেই সাধারণ আয়ের মানুষের। ক্রেতাদের অভিযোগ, সরবরাহ ব্যাপক হলেও তবু কেন নাগালের বাইরে ইলিশের দাম?

রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে দেখা যায়, ৪৫০ টাকা থেকে শুরু করে ২৫০০ টাকা কেজি দরে ইলিশ বিক্রি হচ্ছে। বাকি নেই পাড়ার অলিগলি, মহল্লাও। ইলিশের এই দাম স্বাভাবিক নিয়মেই মাছের সাইজের ওপর নির্ভর করে। কেজিতে ৫টা ওঠে, এমন সাইজের ইলিশ ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আর দুই কেজির ওপরের সাইজের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে আড়াই হাজার টাকা কেজি দরে।

জানা গেছে, এখনও বাজারে এক কেজি সাইজের ইলিশ ১২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সাইজ যদি দেড় কেজি ওজনের হয়, তাহলে তার দাম বেড়ে দাঁড়াচ্ছে ১৫ থেকে ১৬০০ টাকা। এই দামে এক কেজি ইলিশ মাছ কেনার ক্রেতা কম হলেও অবিক্রিত থাকে না এসব মাছ। বিক্রি হচ্ছে সব সাইজের মাছই। আবার ২০০ গ্রাম থেকে ৩০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের কেজি ৫০০ টাকা। ওজন ৪০০ থেকে ৫০০ গ্রাম হলে দাম কেজিপ্রতি ৭০০ টাকা থেকে ৭৫০ টাকা।

সাধারণ ক্রেতাদের অভিযোগ, বাজারে সরবরাহ কম নয় ইলিশের তবুও দাম চড়া। অন্যদিকে মাছ ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, সরবরাহ থাকলেও ভারতে রফতানির সুযোগ দেয়ার কারণে বাজারে বড় সাইজের ইলিশের সরবরাহ কম, তাই দাম বেশি। বড় সাইজের ইলিশই ভারতে রফতানি হচ্ছে। ব্যাপক চাহিদার কারণেই ছোট সাইজের ইলিশের দামও চড়েছে।

রাজধানীর আব্দুল্লাহপুরের পাইকারি মাছ বাজারে ইলিশ কিনতে আসা টঙ্গীর সাদ্দাম হোসেন বলেন, ছোট সাইজের ইলিশের কেজিও ১১০০ টাকা। সাধারণ আয়ের মানুষ হিসেবে ইলিশ কেনা সম্ভব নয়। নিত্যপণ্যের যে পরিমাণ দাম, ইলিশ কিনলে আর পকেটে টাকা থাকবে না। ইলিশ সাধের মাছ হলেও আমাদের কেনার সাধ্য নেই।

তবে মাছ ব্যবসায়ীরা জানায়, দুদিন পরেই মা ইলিশকে ডিম ছাড়ার সুযোগ দিতে ২২ দিনের জন্য ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আসছে। সে কারণে ব্যবসায়ী ও ক্রেতা উভয়েরই ইলিশের ওপর আগ্রহ বাড়ছে। এতে বাড়ছে ইলিশের দাম। সরবরাহ ব্যাপক হলেও চাহিদার কারণে দাম এ বছর স্থিতিশীল হচ্ছে না।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ