রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বেপরোয়া সিন্ডিকেট: খরুলিয়ায় গরুসহ চোর আটক

প্রকাশনার সময়: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৫৩

কক্সবাজারের বিভিন্ন এলাকায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে গরু চোর চক্র। তাদের আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে এলাকার মানুষ। প্রতিরাতেই কোনো না কোনো এলাকায় হানা দিচ্ছে সংঘবদ্ধ চোরের দল। গত ১ মাসে প্রায় অর্ধশতাধিক গরু চুরি হয়েছে শুধু সদরের ঝিলংজা থেকে।

এমতাবস্থায় সদরের খরুলিয়া থেকে চুরি করা গরুসহ আনিস (২৮) নামে এক যুবককে আটক করেছে স্থানীয়রা।

শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ভোরে ঝিলংজার ৯ নং ওয়ার্ডের খরুলিয়া খামার পাড়া থেকে তাকে আটক করা হয়। আনিস একই ওয়ার্ডের মাষ্টার পাড়া গ্রামের মৃত ফজল কবিরের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য শরীফ উদ্দিন। তিনি জানান, গরুটি পার্শ্ববর্তী পিএমখালী ইউনিয়নের পাতলী মিয়াজী পাড়ার গ্রামের খাইরুজ্জামানের। তিনি পুলিশকে ঘটনাটি অবহিত করেছেন বলে জানান এই জনপ্রতিনিধি।

গরুর মালিকের ছেলে আবদুল্লাহ আল আমিন বলেন, রাত দশটার দিকে গোয়াল ঘরে গরু বেঁধে রেখে ঘুমাতে যাই। সকালে উঠে দেখি সেখানে গরু নেই। এরপর থেকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে চুরি হওয়া গরুর খবর তার কাছে আছে জানিয়ে আনিস নামের এক যুবক কল দেন। গরু পেতে গেলে তাকে টাকা দিতে হবে বলে এসময় তিনি শর্তও দেন। পরে শর্ত অনুযায়ী যোগাযোগ করলে তিনি পার্শ্ববর্তী খামার পাড়া গ্রামের নির্জন একটি খোলা মাঠে নিয়ে গেলে সেখানে গরুটি বাঁধা অবস্থায় দেখা যায়। তখন ঘটনাটি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের জানালে সেখান থেকে তাকে গরুসহ আটক করে রাখে।

এদিকে স্থানীয়রা জানান, গভীর রাতে গোয়াল ঘর থেকে গরু চুরি করে নম্বরবিহীন ট্রাক, চাঁদের গাড়ি, পিকাপ, সিএনজিতে উঠিয়ে নিয়ে যায় চোরেরা। আর এসব ঘটনায় খুব কম সংখ্যক মামলাই রেকর্ডভুক্ত হয়। অনেক ক্ষেত্রে ক্ষতিগ্রস্তরা প্রতিকার পাবেন না- এ আশংকা বা পুলিশি হয়রানির ভয়ে থানায় অভিযোগও দেন না। ফলে চোরের দল পার পেয়ে যাচ্ছে নির্বিঘ্নে।

তাদের দাবি, আটক আনিস একজন পেশাদার গরুচোর। কৃষি নির্ভর পরিবারগুলো গরু দিয়ে চাষাবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করে। আর গরু চোরেরা যখন এসব মূল্যবান গরু চুরি করে নিয়ে যায় তখন হতদরিদ্র এসব পরিবারগুলো নিঃস্ব হয়ে পড়ে। রাতের বেলায় যেসব সড়কে আলো থাকে না কিংবা অনেকটা নির্জন ও সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশি উন্নত- বিশেষ করে সেসব এলাকায় চুরির ঘটনা বেশি ঘটছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি (তদন্ত) সেলিম উদ্দিন জানান, গরুসহ একজনকে আটকের খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হচ্ছে।

নয়া শতাব্দী/জেআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ