ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

শেরপুরে দিনমজুরের রহস্যজনক মৃত্যু 

প্রকাশনার সময়: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৩৯ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৬:৪৫

শেরপুরে দিনমজুরের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করার পর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বাদী ও নিহতের পরিবার।

নিহত মানিক মিয়া (২৮) সদর উপজেলার ঘুঘুরাকান্দি এলাকার অফেত আলীর ছেলে।

এরআগে গত ৩০ আগস্ট রাতে জেলার সদর উপজেলার চরদুবলাই গ্রামে রাস্তার পাশে পাওয়া যায় দিনমজুর মানিক মিয়ার (২৮) লাশ। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তরের পর এলাকায় দাফন করা হয়।

এ ঘটনায় থানায় গেলে মামলা নেয়নি পুলিশ। এরপর গত ৪ সেপ্টেম্বর জহুর আলীসহ ১০ জনকে আসামি করে আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন মানিকের বাবা অফেত আলী। আদালত ঘটনার বিষয়ে তদন্তপূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য শেরপুরের সিআইডিকে নির্দেশ দেন। এরপর আদালতের নির্দেশ মোতাবেক ঘটনার বিষয়ে তদন্তে নামে সিআইডি। কিন্তু মামলা করার পর থেকেই বেড়ে গেছে ওই সঙ্গবদ্ধচক্রসহ স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের নানা অপতৎপরতাসহ হুমকি-ধামকি। ফলে মামলা করেও আসামিদের ভয়ে এলাকায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বাদীসহ তার পরিবার।

সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে গেলে পাওয়া যায় এ তথ্য। মানিকের বাবার অভিযোগ, সামান্য কথা কাটাকাটির জের ধরে এলাকার কয়েকজন সন্ত্রাসী মানিককে বেশ কিছুদিন থেকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিল। ওই অবস্থায় গত ৩০ আগস্ট সন্ধ্যায় ঘুঘুরাকান্দি উত্তরপাড়ার জহুর আলীসহ কয়েকজন ব্যক্তি মানিককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরে চরদুবলাই গ্রামে রাস্তার পাশে তার লাশ পড়ে আছে বলে স্বজনরা খবর পায়।

মানিকের বাবা সফেত আলী জানান, তার ছেলেকে একটি চক্র পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে শেরপুরের সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার শওকত আলম পিপিএম জানান, আদালতের নির্দেশ পাওয়ার পর ঘটনার তদন্তে অনুসন্ধানের কাজ চলছে। দ্রুতই ওই রহস্যের উন্মোচন ঘটবে।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ