ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আগুনে পুড়ল পাঁচ ব্যবসায়ীর স্বপ্ন

প্রকাশনার সময়: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪:৫৪

হঠাৎ লাগা আগুনে চোখের সামনে স্বপ্নের দোকানগুলো পুড়ে ছাই হয়ে গেল। তিল তিল করে গড়ে তোলা স্বপ্নও সেই সঙ্গে পুড়ে গেল। সারা জীবনের পুঁজি এবং উপাজর্নের একমাত্র অবলম্বন চোখের সামনেই সব শেষ। দেখা ছাড়া কিছুই যেন করার ছিল না তাদের। এখন শুধুই আক্ষেপ।

ময়মনসিংহের নান্দাইলে বীরবেতাগৈর ইউনিয়নের বীরকামট খালী দক্ষিণ বাজারে আগুনে ৫টি দোকান পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে প্রায় ১ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত সাড়ে বারোটায় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটে।

খবর পেয়ে নান্দাইল ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

এসময় দুটি ফার্মেসি, দুটি কসমেটিকসের দোকান ও একটি অটোরিকশা সার্ভিসিং দোকান আগুনে পুড়ে মালামালসহ প্রায় ১ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান বাজারের সভাপতি ও ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা হলেন, মো. নজরুল ইসলাম, নাসির উদ্দিন, মানিক মিয়া, রাসেল মিয়া, এবং মিজানুর রহমান মিন্টু।

ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, শুক্রবার রাত সাড়ে বারোটার দিকে বাজারের অটোরিকশা সার্ভিসিং দোকানে প্রথম আগুন লাগে। আগুনে ৫টি দোকান পুড়ে গেছে। স্থানীয় লোকজন আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে এক ঘণ্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

নান্দাইল ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার খোরশেদ আলী প্রধান জানান, রাত ১টার দিকে আগুন লাগার খবর স্থানীয়রা ফোন করে জানালে সঙ্গে সঙ্গে একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় এক ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়।

অটোরিকশা সার্ভিসিং দোকানের বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

সরেজমিনে শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে বীরকামট খালী দক্ষিণ বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো পুড়ে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। খবর পেয়ে শত শত মানুষ ছুটে আসছেন।

কসমেটিকস ও লাইব্রেরি দোকানের মালিক মো. নজরুল ইসলাম বলেন, আমার দোকানে প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল ছিল। ঘরটি নির্মাণ করতে খরচ হয়েছিল ১৫ লাখ টাকা। কিন্তু আগুনে সব পুড়ে গেছে। আমি নিঃস্ব হয়ে গেছি।

আরেক কসমেটিকস দোকানদার নাসির উদ্দিন বলেন, ‘আমার দোকানে প্রায় পাঁচ লাখ টাকার মালামাল ক্ষতি হয়েছে। বীরকামট খালী দক্ষিণ বাজারের সভাপতি মো. আব্দুস সাত্তার বলেন, ‘সব মিলিয়ে আগুনে অন্তত ১কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।’

নয়া শতাব্দী/জেআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ