ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪
ত্রিশালে সরকারি অফিস গুলোতে

নির্ধারিত সময়ে আসেনা কেউ, খালিরুমেই চলে লাইট-ফ্যান

প্রকাশনার সময়: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৭:০৮

ময়মনসিংহের ত্রিশালে সরকারি অফিস গুলোতে সরকার নির্ধারিত সময়ে অফিস করছেননা বেশীরভাগ কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। খালিরুমে চলছে লাইট, ফ্যান।

বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের লক্ষ্যে অফিসটাইম সকাল ৮ থেকে নির্ধারন করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। তবে, ত্রিশাল উপজেলার বেশীরভাগ সরকারি অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দেখা গেলনা নির্ধারিত সময়ে অফিস করতে। খালিরুমেই চলছে লাইট, ফ্যান।

সরেজমিনে দেখা যায়, বুধবার সকাল পৌনে ৯ টায় উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে পরিচ্ছন্নতা কর্মী ছাড়া দেখা গেলোনা সরকারী কোন কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়েও ছিলোনা কেউ। এসময় কক্ষে কেউ না থাকলেও চলছিলো ফ্যান, লাইট। তার পাশের অফিস সহকারীর কক্ষে একজন থাকলেও অন্য চেয়ারগুলো ছিলো ফাঁকা।

নিচতলায় উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী, মৎস অফিস, সমাজসেবা অফিস, কৃষি অফিস, সমবায় অফিসসহ কোন কর্মকর্তা কর্মচারীকে সকাল ৯.২০ মিনিটেও পাওয়া যায়নি।

অপর দিকে তালাই খোলা হয়নি পরিসংখ্যান কর্মকর্তার অফিসের। কর্মকর্তাদের পাশাপাশি বেশীরভাগ অফিস গুলোতে দেখা যায়নি কর্মচারীদেরও। বেশীরভাগ অফিস গুলোতে খালিরুমেই চলছিল লাইট, ফ্যান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, আমি সকাল ৮ টায় অফিসে এসে বাহিরে ফিল্ডের কাজে বের হয়েছি। তাছাড়া আমার অফিসের সকল কর্মকর্তাদের সকাল ৮ টায় অফিস করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বিদ্যুৎ অপচয়ের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, আমি তিনটি লাইট চালাই, দুটি ফ্যান। আমি বের হলে সেগুলোও বন্ধ থাকে। অন্যান্য বিভাগের ক্ষেত্রে আমি কিছু করতে পারিনা। তাদের বিভাগীয় কর্মকর্তা আছে তাদের সাথে কথা বলেন। আমি আমার ব্যাপারে বক্তব্য দিচ্ছি, অন্যদের ব্যাপারে তাদের সাথে কথা বলেন।

নয়াশতাব্দী/এমএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ