রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯
জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়

বিদ্যুৎ বিভাগের দুঃখ প্রকাশ

প্রকাশনার সময়: ০৪ অক্টোবর ২০২২, ২২:৫৭

জাতীয় গ্রিডের ইস্টার্ন অঞ্চলে (ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ) অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) রাতে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দুঃখ প্রকাশের কথা জনানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, দুপুর ২টা ৪ মিনিটে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জন্য বিদ্যুৎ বিভাগ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছে। অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে বিদ্যুৎ বিভাগ ও সংশ্লিষ্টরা কাজ করছে। যদিও এ সময়ে দেশের উত্তর অঞ্চল (রাজশাহী, রংপুর) ও দক্ষিণ অঞ্চলের (খুলনা, বরিশাল) বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক ছিল।

বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়, ২টা ৩৬ মিনিটে আশুগঞ্জ-সিরাজগঞ্জ ২৩০ কেভি সঞ্চালন লাইন চালুর মাধ্যমে ক্রমান্বয়ে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু করা হয়। রাত ৯টায় সিস্টেম জেনারেশন ৮ হাজার ৪৩১ মেগাওয়াট এবং ক্রমান্বয়ে জেনারেশন বৃদ্ধি করে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার কাজ চলমান আছে। জাতীয় গ্রিডের পূর্বাঞ্চলের বৃহৎ জেনারেশন কেন্দ্রসমূহ (ঘোড়াশাল, আশুগঞ্জ, মেঘনাঘাট, হরিপুর, সিদ্ধিরগঞ্জ ইত্যাদি) চালু করে ধীরে ধীরে সিস্টেম স্বাভাবিক করা হচ্ছে।

বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণ অনুসন্ধানে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশের (পিজিসিবি) নির্বাহী পরিচালক ইয়াকুব ইলাহী চৌধুরীর নেতৃত্বে ৬ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছেও বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। এছাড়া বিদ্যুৎ বিভাগের পক্ষ থেকেও আরও দুটি কমিটি গঠন করা হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গ্রাহকদের ধৈর্য ধরার জন্য অনুরোধ করে বলেছেন, পাওয়ার গ্রীড, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড এবং সংশ্লিষ্ট দফতরের প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ানরা অক্লান্ত শ্রম দিচ্ছেন। দ্রুতই বিদ্যুৎ সরবরাহ সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হবে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার দুপুরে একযোগে জাতীয় গ্রিডের ইস্টার্ন অংশে সমস্যা দেখা দেয়ায় অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সৃষ্টি হয়। বন্ধ হয়ে যায় এসব এলাকার বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো। আর তাতে বিদ্যুৎবিহীন হয়ে পড়ে এসব এলাকার হাসপাতাল, বাসা-বাড়ি, দোকানপাটসহ সব স্থাপনা। বাদ যায়নি রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাও।

এদিন সন্ধ্যার পর আস্তে আস্তে বিদ্যুৎ আসতে শুরু করলেও রাজধানীর তুলনায় জেলা শহরে আলো ফিরে দ্রুত। তবে কোথাও কোথাও বিদ্যুৎ এসেও আবার চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

নয়াশতাব্দী/জেডআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ